মঙ্গলবার, ১৬ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১লা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, সকাল ৬:০৭
বিসিসির সাবেক মেয়র কামালের ইন্তেকাল নগরীর কাকলীর মোড়ে ইলেকট্রিশিয়ান তরিকুল কে কুপিয়ে জখম নগরীতে ব্যবসায়ী কে পিটিয়ে আহত করেছে সন্ত্রাসীরা বরিশাল গনপুর্ত’র তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মানিক লাল দাসের যোগদান, আনোয়ারুল’র বিদায় সংবর্ধনা। বিএমপি’র চলমান প্রকল্প নিয়ে গনপুর্ত’র সাথে, পুলিশ কমিশনারের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত বরিশালে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব মিজানুর রহমান বৃক্ষরোপন উদ্বোধন করেন বরিশাল সদর উপজেলায় পাসপোর্ট তদন্তে টাকা দাবি, সিটি এসবির, পুলিশ মেম্বার হাতাহাতির অভিযোগ শের-ই বাংলা হাসপাতালে নার্সিং সুফিয়া সিলেটের এানের নামে টাকা উওোলন, অতঃপর ঈদ শপিংয়ে খরচ নগরীতে গৃহবধূকে কুপিয়ে জখম বিভাগীয় পরিবেশ অধিদপ্তরের জেলা অফিস’র উদ্বোধন করেন, পরিচালক মোঃ আবদুল হালিম

বাকেরগঞ্জ দুধলমৌতে ব্যাটালিয়ন পুলিশ সদস্য নাঈম’র বিরুদ্ধে প্রতারণা করে -২ বিয়ের অভিযোগ।

  • স্টাফ রিপোর্টার।।

বরিশালের বাকেরগঞ্জের দুধলেমৌ মোঃ নাঈম বিস্বাসের দুই  বিয়ে করার  প্রতারণার অভিযোগ পাওয়া গেছে,বর্তমানে ঢাকা মোহাম্মাদ পুর কনস্টেবল পদে চাকরিতে আছেন নাঈমের ব্যাচ নং 13491spbn-2 সোনালী আক্তার নামে এক কলেজ পড়ুয়া মেয়েকে প্রেমের ফাদে ফেলে দীর্ঘ দিন তাকে বিয়ের নামে দিনের  পর দিন তার সাথে শারীরিক সম্পক গড়েন।এক প্রকারে সোনালী তাকে সামাজিক ভাবে বিয়ে করার প্রস্তাব দিলে নাঈম কৌশলে কেটে পড়ার পায়তারা করেন, তার দীর্ঘ দিন পরে নাঈম বিস্বাস ও সোনালি তারা গোপনে বরিশাল চীপ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নোটারী আদালতের মাধ্যমে সোনালী গত ৪.৩.২১ এ্যাঃ সুফিয়া আক্তার স্বাক্ষরিত নোটারী মাধ্যম কোটে বিবাহ হয়। তবে তাদের কিছুদিন ঘর সংসার সুখে কাটে তাদের দাম্পত্য জীবন, তবে তার কিছুদিন পর যখন উভয় পক্ষের বাবা মা জানতে পারে তারা নিজারাই যখন বিবাহ করেছে তাহলে কি করার আছে কি।  তার কিছুদিন পর পুনরায় উভয় পক্ষের সম্মতিতে গত ২৩.১১.২১ তারিখে মুসলিম  বিবাহ ও তালাক (নিবন্ধন) বিধিমালা  ২০০৯ এর বিধি, ২৮ (১) ক অনুযায়ী। মাওলানা কাজী আব্দুর রাজ্জাক নিকাহ্ রেজিস্টার চকেরপুল বরিশাল তার মাধ্যমে বিবাহ সম্পুর্ন হয়, তার কিছুদিন পর  সোনালী আক্তার ও তার স্বামী নাঈম সুখে শান্তিতে ঘর সংসার করার পর। সোনালীর শ্বশুর মোঃ ফারুক বিস্বাস একের পর এক কু প্রস্তাব দিয়ে আসলে সোনালী তাতে সাড়া না দিয়ে, চুপ করে ঘর সংসার করার চিন্তাভাবনা করতে থাকে। তবুও রেহাই পাননি সোনালী তার শ্বশুরের হাত থেকে এক প্রকার সোনালীর মা পারভিন বেগমকে ঘটনাটি জানালে তিনিও মুখবুঝে থাকতে বলেন তার মেয়েকে, তার কয়েক দিন পর ঘটনা আরো উদঘাটি হয় গোপনে না কি আরো একটি মেয়ের সাথে সম্পক রয়েছে নাঈম বিস্বাসের সাথে। পরে খোজ নিয়ে  জানাযায় বর্তমানে ঢাকা যে মেয়কে নিয়ে ঘর সংসার করছে তাকেও না বিবাহ করেছে নাঈম,  তবে সূএমতে কিনতু তার প্রথম স্ত্রী সোনালী হওয়ার কথা কিনতু এখানে সোনালী কে সাজিয়েছে ২য় স্ত্রী। তারই যখন জানতে পারে সোনালী  তার স্বামী একজন নারী পাচার কারী ও নারীভোগ কারী ওতার  সাথে প্রেম ভালো বাসার নামে নাটকীয় অভিনয় করে আসছে, ঠিক তখনই একের পর এক নির্যাতন ও যৌতুক টাকার চাপ দিতে থাকে নাঈমের বাবা ও তার মা ভোন এরা সবাই মিলে সোনালীর ওপর নির্যাতন করে আসছে। এক প্রকার  সোনালী ও তার মা পারভিন গত  ৭.১২.২১ রোজ সোমবার অনুমানিক ১১ঃ৩০ মিনিট তারা বরিশাল আসেন,  দৈনিক সিটিজেন ও  দৈনিক দক্ষিণের  ক্রাইম পএিকা অফিসে একটি অভিযোগ করেন। তারই সংবাদ প্রকাশ্যের জন্য অভিযুক্ত অ্যাম ব্যাটালিয়ন পুলিশ সদস্য নাঈমের মুঠো তার বক্তব্য নেওয়ার জন্য তাকে ফোন করা হলে তিনি সাংবাদিক মোঃ জহিরুল ইসলাম জুয়েল কে বিভিন্ন হুমকি ও ধামকি কেন, তার কিছুটা পরে আবার কল দেন অভিযুক্ত নাঈম তিনি ফোন করে বলেন ভাই আমাকে মাফ করেন ভাই আপনার সাথে খারাপ ব্যবহার করেছি। ভাই আপনি আমার বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ না করার জন্য বলেন আপনার সাথে আমি দেখা করব, আমার ডকুমেন্ট গুলী ডিলেট করেন। তার প্রায় ১: ঘন্টা পরে আমার মুঠো ফোনে এই নাম্বার + 88 09638255386  আসে বলে জুয়েল ভাই বলছেন, আমি বাকেরগঞ্জ থানার ওসি রুহুল আমিন বলছি আপনি থানায় আসেন। তার কিছুক্ষণ পরে আমি ওসি বাকেরগঞ্জ থানাকে কল দিলে তারা বলেন এই নামে কোন এস আই অথবা ওসি নেই ওসি তো আলাউদ্দিন আমি নিজে আছি।