বুধবার, ১লা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, রাত ২:২৩

শেবাচিমে নার্স লিংকনের প্রশংসায় বীরেন সাহা

বিপ্লব আহমেদ।।

মানুষ মানুষের জন্য জীবন জীবনের জন্য একটু সহানুভূতি কি? মানুষ পেতে পারে না”। হাসপাতালে এক অসুস্থ বৃদ্ধাকে ভর্তি রেখে স্বাস্থ্য সেবা দেয়া ব্যক্তিগত অর্থায়নে পোশাক সহ বিভিন্ন খাবার সামগ্রী উপহার ও তার দায়িত্বভার নিয়ে সেই কন্ঠ শিল্পী ভূপেন হাজারিকার গানের কথার সাথে বাস্তবতা প্রমাণ করে দিলেন দক্ষিণাঞ্চলের সর্ববৃহৎ স্বাস্থ্য সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের এক সিনিয়র নার্স লিনকন দত্ত। গত তিন মাস ধরে সার্জারি সমস্যা নিয়ে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন এন্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে চিকিৎসাধীন হতদরিদ্র বীরেন সাহা। সেই সুবাদে ওই ইউনিটে সাক্ষাতে পরিচয় হয় ওই ইউনিটের কর্তব্যরত সিনিয়র স্টাফ নার্স লিনকন দত্তের সাথে। তার সাথে আলাপকালে ধীরেন তার অর্থনৈতিক অবস্থার কথা লিনকন কে জানালে লিনকন সেই শুরু থেকেই ব্যক্তিগত অর্থ দিয়েবিরেন কে চিকিৎসা সেবা দিয়ে আসেন তার প্রতিদিনের খাওয়া-দাওয়া শুরু করে তার ওষুধ কেনা সহ তার পরনে ভালো পোশাক না থাকায় তাকে পোশাক জুতা ও লুঙ্গি উপহার দেয়া সহ বিভিন্ন ফলমূল ও খাবার কিনে দেন তিনি। তার সেবায় বীরেন সাহা দ্রুত সুস্থ হয়ে ওঠেন। তাই নার্স লিনকন এর প্রশংসায় বীরেন সাহা পঞ্চমুখ। সে পটুয়াখালী জেলার গলাচিপা উপজেলার রতন দি গ্রামের মৃত: অনিল চন্দ্র সাহার ছেলে। অভাব-অনটন সংসারে পরিবারের কথা ভেবে তিনি এখন পর্যন্ত বিয়ে করেননি। বীরেন সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে মঙ্গলবার (২৮ জুলাই) লিনকন এর কাছ থেকে বিদায় নেন।যাওয়ার আগে তার চোখের পানি দেখে লিনকন তার চোখের পানি ধরে রাখতে পারেনি। মনে হয় তার সাথে যুগ যুগ ধরে পরিচয় ছিল। কিংবা তার আত্মার সাথে বন্ধন রয়েছে। বিদায় বেলায় ও তাকে নগদ অর্থ প্রদান করে তার সাথে লোক দিয়ে বাড়িতে পাঠিয়ে দেন। বীরেন বলেন, আমি কখনো এই ভালো মানুষটার কথা ভুলবো না আমাকে কেউ এরকম ভালবাসেনি। মনে হয়েছে সে আমাকে পিতার মতো ভালোবেসেছেন। আমি তার জন্য আজীবন প্রার্থনা করব। সে যেন ভালো থাকেন। আরো বড় মনের মানুষ হয়। লিনকন বলেন, কি করব অসহায় মানুষদের দেখলে খুব খারাপ লাগে। এরা কোথায় যাবে। তাই কিছু ভালো কাজ করার জন্য চেষ্টা করলাম মাত্র। কারণ পরপারে সবার যেতে হবে। তাই কিছু ভালো কাজ সবারই করা উচিত।