বুধবার, ১লা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, রাত ৩:৩০

বরিশালে আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালিত

প্রতিদিন বরিশাল

বরিশাল বিভাগীয় কমিশনার (অতিরিক্ত সচিব) মুহাম্মদ ইয়ামিন চৌধুরী বলেছেন, আমাদের সমাজে অনেক নারী নেত্রী রয়েছেন যারা বাহিরে সভা-সেমিনার ও সমাজ সেবার কাজ পরিচালনা করে থাকেন। আবার অনেক ক্ষেত্রে দেখতে পাওয়া যায় তারা বাড়িতে ফিরে গৃহকর্মী, পুত্রবধূ বা কন্যাদের নির্যাতন করেন। তাদের মত ব্যক্তিত্বের অধিকারীদের কাছে এসব কাম্য নয়। এধরনের মানসিকতা থেকে তাদের বের হয়ে আসার আহবান জানান বিভাগীয় কমিশনার।

‌‌’প্রজন্ম হোক সমতার সকল নারীর অধিকার’ এই প্রতিপাদ্য নিয়ে আজ রবিবার আন্তর্জাতিক নারী দিবস ২০২০ উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এই আহবান জানান বিভাগীয় কমিশনার মুহাম্মদ ইয়ামিন চৌধুরী।

তিনি বলেন, অনেক পরিবারে নারী নির্যাতনের ঘটনা ঘটে। এক্ষেত্রে দেখা যায়, মূলত নারীরাই বেশি জড়িত। সভা-সেমিনার করে বা এককভাবে এসব সমাধান করা যাবে না। একারণে শুধু শহরেই নয়, জন্য গ্রামের দিকেও নজর দিতে হবে। যেখানে প্রতিনিয়ত নারী নির্যাতনের ঘটনা ঘটছে। এ ধরনের কর্মকাণ্ডরোধে নারী নেত্রীদের এগিয়ে আসারও আহবান জানান বিভাগীয় কমিশনার।

বরিশাল জেলা প্রশাসন, মহিলা অধিদপ্তর সহ সকল উন্নয়ন সংস্থার আয়োজনে ও বরিশাল জেলা প্রশাসক এস.এম অজিয়র রহমানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোঃ শাহাবুদ্দিন খান বিপিএম (বার), বরিশাল জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নাইমুল হক, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট তৌহিদুজ্জামান পাভেল, বরিশাল মহিলা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক দিলারা খানম,ব রিশাল সচেতন নাগরিক কমিটির সভাপতি অধ্যাপিকা (অবঃ) শাহ্ সাজেদা, বরিশাল মহিলা পরিষদ সভাপতি রাবেয়া খাতুন, উন্নয়ন সংস্থা আভাস’র নির্বাহী পরিচালক রহিমা সুলতানা কাজল, উন্নয়ন সংস্থা সেন্ট বাংলাদেশ’র নির্বাহী পরিচালক কাজী জাহাঙ্গীর প্রমুখ।

????????????????????????????????????

প্রধান অতিথি বলেন, ইসলামে যেকোন ধর্মের চেয়ে নারীর অধিকার রাখা হয়েছে বেশি। বিভিন্ন প্রচার-প্রচারনায় আমরা এক সময় পিছিয়ে পড়েছিলাম, সেখান থেকে এখন বের হয়ে এসেছি। আমাদের মেয়েরা অন্যের সংস্কৃতির দিকে নজর না দিয়ে নিজস্ব সংস্কৃতির মাধ্যমে সামনের দিকে এগিয়ে যাবে। বর্তমানে আমাদের মেয়েরা শিক্ষাক্ষেত্রে সফলতা অর্জন করেছে, আমরা চাই এধারা অব্যাহত থাকবে-।

পরে সমাজে বিভিন্ন পর্যায়ে বিশেষ অবদান রাখায় জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি রাবেয়া খাতুন, সচেতন নাগরিক কমিটির সভাপতি অধ্যাপিকা শাহ্ সাজেদা, নারীর ক্ষমতায়নে আমাদের পথপ্রদর্শক কহিনুর বেগম, নারী সংগঠক ও ডিস্ট্রিক্ট উইমেন্স চেম্বার্স অব কমার্স’র পরিচালক ডাঃ বনলতা মুর্শিদা,
সফল নারী উন্নয়ন কর্মী রহিমা সুলতানা কাজল,সাবেক বরিশাল মহিলা অধিদপ্তর উপ-পরিচালক রাসিদা বেগম,নারীর ক্ষমতায়ন উন্নয়নে কাজ করা সহ কেন্দ্রীয় মহিলা পরিষদ সহ-সভাপতি নুরজাহান বেগম, বাংলাদেশ বেতারের গীতিকার ও কবি আসমা চৌধুরী, নারী উদ্যোক্তার ক্ষেত্রে অবদান রাখায় হাসিনা বেগম নীলা, নারী মানবাধিকার আন্দোলনে মহীয়সী অবদান রাখায় নারী নেত্রী পূস্প চত্রবর্তী, ১৯৯৭ সালে বরিশালে প্রথম নারী উদ্যোক্তাদের নিয়ে ডিস্ট্রিক্ট উইমেন বিজিনেস ফোরাম নামের সংগঠন গড়ে তুলতে অবদান রাখায় তরুণ নারী নেত্রী নিগার সুলতানা হনুফাসহ ১১ নারী নেত্রীর হাতে সম্মাননা পুরস্কার হিসেবে ক্রেস্ট তুলে দেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বিভাগীয় কমিশনারসহ বিশেষ অতিথিরা।

এছাড়া একই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বরিশাল আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা ব্র্যাকের আয়োজনে যৌন হয়রানী, বাল্য বিয়ে, সাইবার বুলিং এবং নারী ও শিশুর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধ বিষয়ক শিশুদের নিয়ে অনুষ্ঠিত চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার প্রদানসহ স্বাক্ষর সংগ্রহ প্রচার অভিযানে স্বাক্ষর করেন বিভাগীয় কমিশনার, জেলা প্রশাসক ও পুলিশ কমিশনার সহ বিভিন্ন কর্মকর্তাগণ।

এর পূর্বে সকাল ১১ টায় ফেস্টুন উড়িয়ে আন্তর্জাতিক নারী দিবসের উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি।