বুধবার, ১লা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, রাত ৩:২৩

নগরীতে শিশুসহ -৩ জনকে পিটিয়ে জখম

স্টাফ রিপোর্টার।।

নগরীর দক্ষিণ আলেকান্দা মেডিকেল কলেজ লেন এলাকায় অবৈধভাবে বিদ্যুৎ সংযোগের প্রতিবাদ করায় শিশু সহ একই পরিবারের ৩ জনকে পিটিয়ে গুরুতর জখম করেছে জহিরুল ইসলাম তোতা ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী। শুক্রবার দুপুর ২ টায় মেডিকেল কলেজ লেন এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন, ওই এলাকার বাসিন্দা ও ঠিকাদার হারুন-অর-রশিদ ওয়াসিম, স্ত্রী লতা বেগম ও ছেলে আরফান। বর্তমানে তারা শেবাচিম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। আহত সূত্র জানান, ওই এলাকার বাসিন্দা জহিরুল ইসলাম তোতা ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী মিলে একই এলাকার ঠিকাদার ওয়াসিমের ঘরের উপর দিয়ে কোন নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করে দীর্ঘদিন ধরে হরদমে অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ চালিয়ে আসছে । তারই ধারাবাহিকতায় ঘটনার দিন সকালে তার শিশু সন্তান আরফান খেলা ধুলা করতে গেলে হঠাৎ বিদ্যুতায়িত হয়। তার ডাক চিৎকারে তার বাবা-মা ঘটনাস্থলে ছুটে গিয়ে আরফান কে উদ্ধার করে। ওয়াসিম বিষয়টি তোতাকে জানাতে গেলে তোতা ও তার স্ত্রী তাদের কাছে আরফানের মৃত্যু কামনা করে। সেই সূত্র ধরে দুপুরে উভয়ের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে তোতা ও তার ছেলে আরাফাত ও ভাই রিপন ও তার ছেলে রিয়াদ সহ অজ্ঞাত আরোও ৩/৪ জন সন্ত্রাসী ওয়াসিমকে হত্যার উদ্দেশ্যে লাঠিসোটা দিয়ে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে গুরুতর জখম করে। তার যাক চিৎকারে তার স্ত্রী লতা ও ছেলে আরফান ঘটনাস্থলে গেলে তাদেরকেও পিটিয়ে গুরুতর জখম করে। পরে স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে তাৎক্ষণিক শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করে। আহতদের মধ্যে ওয়াসিমের বাম হাতের বৃদ্ধাঙ্গুল ভেঙে যাওয়াসহ মাথায় রক্তক্ষরণ হয়েছে বলে ওই ইউনিটের কর্তব্যরত চিকিৎসকরা জানান। এদিকে অবৈধবিদ্যুৎ সংযোগের বিষয়ে বিদ্যুৎঅফিসের সহকারি প্রকৌশলী জুয়েলের মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি অবৈধ বিদ্যুৎ এর বিষয়ে কিছুই জানেন না বলে অস্বীকার করেন। তবে ঘটনাস্থলে লোক পাঠিয়ে খোঁজ খবর নিয়ে অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ কারীদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেবেন বলে তিনি জানান। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে আহতের স্বজনরা জানান।