বুধবার, ১লা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, রাত ৪:১০

নগরীতে জমি দখলের পায়তারা বাদী -বিবাদীর ভিন্ন শুর, সিটিকর্পোশনে অভিযোগ

জে,আই,জুয়েল।।

বরিশাল নগরীতে প্লান বিহিন বাড়ি নির্মাণ ও অন্যর জমি দখল করে বাড়ি নির্মাণের পাল্টা পাল্টী অভিযোগে গত ৩,১১,২১ তারিখে ১৫ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা আবদুর রউফ ৬৫)তিনি বরিশাল সিটি কর্পোশন কাউন্সিলর বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ করেন, ও বরিশাল কোতয়ালী থানায় একটি সাধারন ডায়রি ও করেন। বাদী আবদুর রউফ। তিনি তার অভিযোগে উল্লেখ করেন বিবাদী ওহাব ৫৫) ও তার স্ত্রী বেবি মিলে তাকে প্রায় সময়ই অকার্থ ও অশালীন ভাষায় গালি দেন ওহাব ও তার স্ত্রী,বেবি এবং তার বিল্ডিং’র ভিতর তারা জোড় করে তার জমি ও তার চলাচলের হাটার রাস্তা দখল করে গেট ও সিটি কর্পোশনের ড্রেনের লাইন দিয়ে। তারা অবৈধ ভাবে পাইপ টেনে ময়লা আবর্জনা ফেলার অভিযোগ, দিয়ে আবদুর রউফ তিনি আরো বলেন তার জমি ৫০: পয়েন্ট তারা জোড় করে দখল করেন। অন্যদিকে অভিযুক্ত ওহাব ও তার স্ত্রী বলছেন ভিন্ন কথা, তারা বলছেন আমরা বাড়ির প্লান ছাড়া কেন ভবন নির্মাণ করব। আমরা বাড়ি করার আগেই প্লান পাশ করে ভবন করেছি, এবং অভিযোগ কারির কোন স্বার্থ আছে কি না বলে আমার বোধগম্য নেই। তিনি যে আমার বিষয়ে বানোয়াট মিথ্যা অভিযোগ এনে আমাকে কেন হয়রানি করছে তাও আমি জানি না। এবং সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় যে আবদুর রউফ তিনিই নাটের গুরু, তার ভবনের মাঝে একটি অংশে দেখা যায় ডেংগু মশার আরদ যেখানে মানুষের বসবাস সেখানে ময়লা আবর্জনা থাকতে পারে না। পুরোটা মিলে একটা ভয়ংকর রুপে আছেন আবদুর রউফ তার বিরুদ্ধে শুিশু নির্যাতনের ও অভিযোগ পাওয়া গেছে তিনি একের পর এক অপকর্ম করেন তার পুরাতন ভবনটিও ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। তবে এই অভিযোগের বিষয়ে বিসিসি কাউন্সিলর মোঃলিয়াকত হোসেন খাঁন তিনি বলেন আমি এখন পর্যন্ত কোন অভিযোগ পাইনি,আমি ঢাকায় চিকিৎসার জন্য এসেছি, তবে অভিযোগ কারীর ও অভিযুক্তদের বিষয়ে তার কাছে মুঠো ফোনে চানতে চাইলে তিনি বলেন আমি গত ৩০ তারিখে মাননীয় মেয়র মহোদয়ের কাছে বলি আমার ওয়ার্ডে শুনু মিয়া লেনে ড্রেন না থাকায় পানি জমে রাস্তা পানি তলিয়ে যায়, তাহার কারনে আমি সিটিকর্পোশনের ইনিঃ নিয়ে ওখানে ২৫০ ফুটের একটি ড্রেন বের করার জন্য ওখানে গেলে ওহাব ও শুনু মিয়া আবদুর রউফ উভয় পক্ষের কথার কাটাকাটি হয়।।আমি তাৎক্ষণিক সবাইকে শান্ত হতো বলি, এর পরে কি হয়েছে আমার জানা নেই। তবে তারা যদি বাড়ির প্লান না করে বাড়ি নির্মাণ করে তাহলে অভিযোগ পেলে বিসিসি প্লান শাখা তদন্ত করে অবশ্যই ব্যবস্থা নিবে বলে তিনি জানান।