বুধবার, ১লা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, রাত ৩:২২

চাখার সরকারি কলেজের এক কর্মচারির বিরুদ্ধে দায়িত্ব পালন না করে বেতন নেওয়ার অভিযোগ

প্রতিদিন বরিশাল

বানারীপাড়ায় চাখার সরকারী ফজলুল হক কলেজের এক কর্মচারীর বিরুদ্ধে দায়িত্ব পালন না করে শুধু হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর করেই বেতন-ভাতা তোলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই কর্মচারীর নাম আইউব আলী সরদার।

জানা গেছে, ১৯৮৩ সালে ঐতিহ্যবাহী চাখার সরকারি ফজলুল হক কলেজে ক্যাশ সরকার পদে যোদ দেন আইউব আলী সরদার। ২০১৭ সালের জুন মাস থেকে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত কলেজে অনুপস্থিত থেকেও নিয়মিত বেতন-ভাতা উত্তোলন করছেন তিনি। অভিযোগ রয়েছে টাকার বিনিময় অনুপস্থিত আইউব আলীর পক্ষে হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর করেন অফিস সহকারি মোস্তাফিজুর রহমান। অভিযোগ রয়েছে বিগত ৩২ মাসের মধ্যে কালেভদ্রে কলেজে এসেছেন অভিযুক্ত ক্যাশ সরকার আইউব আলী সরদার।

এ বিষয়ে আইউব আলী সরদার মুঠোফোনে জানান, তিনি বর্তমানে মেডিকেল ছুঁটিতে রয়েছেন এবং এর আগে নিয়মিত উপস্থিত থাকতেন। কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ প্রফেসর এসএম হাবিবুল ইসলাম জানান ক্যাশ সরকার আইউব আলী সরদার সর্বশেষ গত বছরের ২৬ ডিসেম্বর মেডিকেল গ্রাউন্ডে তিন দিনের ছুঁটি নিয়েছিলেন। তবে ছুটির মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার পরেও তিনি অদ্যবধি অনুপস্থিত রয়েছেন।

এ বিষয় কলেজের অফিস সহকারি মোস্তাফিজুর রহমানের কাছে জানতে চাইলে তিনি ক্যাশ সরকার আইউব আলী সরদারের পক্ষে হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর দিয়ে দেওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করলেও অনুপস্থিত থাকার পরেও তার প্রতিমাসে বেতন-ভাতা তুলে নেওয়ার বিষয়টি স্বীকার করে জানান, প্রতিষ্ঠান প্রধানের নির্দেশক্রমে তাকে কর্মস্থলে অনুপস্থিত থাকার বিষয়ে ৫ কর্ম দিবসের মধ্যে জবাব চেয়ে ৩ জানুয়ারী কারণ দর্শানো নোটিশ দেওয়া হয়েছে।